সপ্তাহের ছুটির দিনগুলোকে কাজে লাগিয়ে শুরু করুন অতিরিক্ত উপার্জন – জেনে নিন ১০টি উইকেন্ড ব্যবসার আইডিয়া

0
7134
weekend business idea

সপ্তাহের শেষের দুটো দিনকে কাজে লাগিয়ে উপার্জন করতে চান, কিন্তু বুঝে উঠতে পারছেন না কোনধরনের ব্যবসার মাধ্যমে এই অর্থ সমাগম হবে? আর চিন্তা নেই। আজকের এই পোস্টে শুধুমাত্র আপনাদের জন্যই টুকিটেক নিয়ে এলো অসাধারন ১০টি উইকেন্ড ব্যবসার আইডিয়া।

উপার্জনের সুযোগ ছড়িয়ে আছে জীবনের প্রত্যেকটি মোড়ে। আমাদের শুধু সেই সুযোগগুলোকে চিনে নিয়ে তাঁকে সঠিক প্রক্রিয়ায় নিজেদের জীবনে কাজে লাগাতে হবে। সেই রকমই প্রত্যেক সপ্তাহে আমাদের হাতের কাছে আসে দুই দিনের একটি সুযোগ, যেটি হলো শনিবার এবং রবিবারের ছুটির দিন। অনেকে এই সুযোগকে কাজে লাগায় নিজের শরীর ও মনকে বিশ্রাম দিয়ে আবার অনেকে এই সুযোগ থেকেও কীভাবে অর্থ উপার্জন করা যায় তার প্রক্রিয়া খুঁজতে থাকে।

আজকের এই পোস্ট আমরা নিয়ে এসেছি বিশেষত সেই সমস্ত মানুষের জন্য যারা তাদের সপ্তাহের শেষের এই দুটো দিনকেও কাজে লাগিয়ে অর্থ উপার্জন করতে চান। সাপ্তাহিক ছুটির দিন মানে সপ্তাহান্তের শনিবার এবং রবিবার এই দুই দিন। প্রত্যেকেরই তাদের উইকএন্ড কাটানোর একটা আলাদা উপায় আছে। কেউ সারা সপ্তাহ কাজ করার পর এই দুটো দিন বিশ্রাম নিয়ে কাটায় আবার কেউ সঙ্গীত, পেইন্টিং বা তাদের মনের অন্য কোনো শখ পূরণ করতে কাজে লাগায় এই দুটো দিনকে। কিন্তু কিছু মানুষ আছেন যারা সপ্তাহান্তে কিছু কাজ করে কিছু অতিরিক্ত আয় করতে চান। আপনি যদি এই শেষের মানসিকতা সম্পন্ন মানুষ হন এবং সপ্তাহান্তে অর্থ উপার্জনের উপায় খোঁজ করতে উৎসুক হন, তাহলে আপনার জন্য আজকের পোস্টে নিয়ে আসা হলো কয়েকটি উইকেন্ড ব্যবসার আইডিয়া।

১০টি উইকেন্ড ব্যবসার আইডিয়াঃ

১। ফোটোগ্রাফির ব্যবসা

আপনার যদি ছবি তোলার ক্ষেত্রে হাত ভালো হয় তাহলে এই ব্যবসা আপনার জন্য একেবারে উপযুক্ত। আপনার ছবি তোলার প্রতিভাকে কাজে লাগিয়ে আপনি বাড়িতেই এক জায়গায় নিজের স্টুডিও খুলে ফেলতে পারেন। এই ধরনের স্টুডিও খুলতে যদিও কিছু পরিমানের বিনিয়োগের প্রয়োজন হয়। তবে আপনি যদি বিনিয়োগহীন ভাবে ফোটোগ্রাফির ব্যবসা করতে চান তাহলে আপনি আপনার তোলা ছবি অনায়াসেই ইন্টারনেটে বিক্রি করতে পারবেন। এইধরনের অনেক পোর্টাল ইন্টারনেটে আছে যারা সুন্দর ছবি দাম দিয়ে কেনে ফোটোগ্রাফারের কাছ থেকে।

২। ইউটিউব

সারা সপ্তাহ সাধারন কাজ করে উপার্জন করার পরেও আপনি সপ্তাহের শেষে শনি-রবিবারে ইউটিউব চ্যানেল খুলে সেখানে ভিডিও আপলোডের মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। ইউটিউবের মাধ্যমে বর্তমানে অনেকেই অর্থ উপার্জন করছেন। ইউটিউবে ভিডিও পোস্ট করার ক্ষেত্রে নিয়মিত হতে হয়। সুতরাং আপনি যদি ভিডিও শ্যুট এবং আপলোড করার জন্য শনি এবং রবিবারকে বেঁছে নেন তাহলে আপনিও এই মাধ্যম থাকে ভালো পরিমান অর্থ উপার্জন করতে পারবেন।

৩। ট্যুর গাইড

আপনি যদি আপনার শহরকে ভালোবেসে থাকেন এবং এর সমস্ত ইতিহাস সম্বন্ধে আপনি যদি সচেতন হন তাহলে ট্যুর গাইডের ব্যাবসা আপনার জন্য লাভজনক হতে পারে। এই ব্যবসা সহজেই পার্শ্ব ব্যবসা হিসাবে করা যায় এবং এতে কোনো বিনিয়োগের প্রয়োজনও পড়ে না। এই ব্যবসা আপনি অনায়াসেই সপ্তাহের ওই শেষের দুটি দিনে করতে পারেন। এরফলে আপনার যেমন ঘোরাও হয়ে যাবে সেইরকমই অর্থ উপার্জন করাও হয়ে যাবে অনায়াসে।

৪। স্পোর্টস কোচ

খেলা-ধূলার ক্ষেত্রে আপনার যদি আগ্রহ থেকে থাকে তাহলে স্পোর্টস কোচ হিসাবে আপনি অনায়াসেই সপ্তাহের ওই শেষ দুটো দিনে পার্শ্ব ব্যবসা করতে পারেন।

। নার্সারির ব্যবসা

এখন অনেকেই নিজেদের ঘর বাড়িকে সবুজে সাজিয়ে তুলতে পছন্দ করেন। যারা শহরে ফ্ল্যাট নেয় তারা তাদের বারান্দা বা গ্যালারিতে একটি ছোট সুন্দর বাগান নির্মাণ করতে চায় এবং তাদের চারপাশটাকে স্বাস্থ্যকর সবুজে সাজিয়ে রাখতে চায়। আবার যাদের বাড়িতে স্বল্প জায়গা আছে তারা সেখানেই বাগান বানাতে পছন্দ করে থাকেন। তাই নার্সারির ব্যবসা শুরু করা আপনার জন্য একটি লাভজনক অর্থ উপার্জনের উপায় হতে পারে। আপনি আপনার বাড়ির কোনো একটি জায়গায় ছোট ফুল, ফল-এর গাছ প্রস্তুত করতে পারেন এবং বাজারে বিক্রি করতে পারেন। আপনি যদি বাগান করতে ভালবাসেন, তাহলে এটি আপনার জন্য একটি নিখুঁত ব্যবসায়িক ধারণা যা আপনার শখ পূরণের সাথে সাথে আপনাকে অতিরিক্ত আয় -এর সুযোগ করে দেবে।

৬। ইলেক্ট্রনিক জিনিস রিপেয়ারিং-এর ব্যবসা

বর্তমান সময়ে ইলেকট্রনিক গ্যাজেট ছাড়া দিন কাটানো খুবই কষ্টসাধ্য একটা ব্যাপার। মোবাইল, ল্যাপটপ, কম্পিউটার ইত্যাদির মতো গ্যাজেট আজ আমাদের জীবনের অংশ হয়ে উঠেছে। তাই এই ডিভাইসগুলো যখন অকেজো হয়ে পড়ে তখন আমাদের জীবনযাত্রা বলতে গেলে রীতিমতো থমকে যায়। এই গ্যাজেটগুলোর দাম বেশী হওয়ার কারনে চট করে কিনেও নেওয়া যায় না। তাই বাধ্য হয়ে রিপেয়ারিং করার প্রয়োজন পড়ে। তাই এই বিষয়ে আপনার যদি বিশেষ দক্ষতা থেকে থাকে তাহলে এই ব্যবসা আপনার জন্য একটি লাভজনক চুক্তি হিসেবে প্রমাণিত হবে। আর যদি এই সম্বন্ধিত দক্ষতা এবং জ্ঞান না থাকে তাহলে আপনি অনায়াসেই কোনো কোর্সের মাধ্যমে সেই জ্ঞান আহরণ করতে সক্ষম হবেন। একবার এই সম্বন্ধে দক্ষ হয়ে গেলে আপনি সহজেই এই উপায়ে উপার্জন করতে পারবেন। এছাড়াও এই ব্যবসা শুরু করতে হলে বিনিয়োগেরও বিশেষ প্রয়োজন পড়ে না। আপনি আপনার বাড়ি থেকেই এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন এবং অতিরিক্ত আয় করতে পারেন।

৭। গ্রাফিক ডিজাইনার

আপনার যদি গ্রাফিক ডিজাইনিং সম্বন্ধে বিশেষ জ্ঞান থাকে তাহলে আপনি অনায়াসে গ্রাফিক ডিজাইনার হিসাবে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। এই ব্যবসা যেমন ফুলটাইম হিসাবে করা যায় সেরকমই এটি পার্শ্ব ব্যবসা হিসাবেও করা যায়। বিভিন্ন সংবাদপত্রের কিংবা ইন্টারনেটের জব পোর্টালে এই বিষয়ের ওপর কাজ খুঁজে পেতে পারেন আপনি। আজকের সময়ে, মানুষ যা দেখে তার প্রতি আকৃষ্ট হয়, তাই আপনি যদি একটি নিখুঁত গ্রাফিক তৈরি করতে সক্ষম হন, আপনি অবিলম্বে এই ব্যবসায় সাফল্য লাভ করতে পারবেন।

৮। কন্টেন্ট রাইটিং

কন্টেন্ট রাইটিং আজকের সময়ে একটি ভালো পার্শ্ব ব্যবসা হিসাবে বিবেচিত হয়। আপনার যদি লেখার ক্ষেত্রে বিশেষ দক্ষতা থাকে তাহলে অনায়াসেই আপনি আপনার নিজস্ব সাইট শুরু করতে পারেন কিংবা অন্য কারোর ওয়েবসাইটেও অর্থের বিনিময়ে কাজ করতে পারেন। এই ব্যবসা আপনি সহজেই কোনোরকমের বিনিয়োগ ছাড়াই করতে পারেন।

৯। রিয়েল এস্টেটের ব্যবসা

পার্শ্ব ব্যবসা হিসাবে সাফল্যদায়ক আরেকটি ব্যবসা হলো রিয়েল এস্টেটের ব্যবসা। এই ব্যবসা সঠিকভাবে করতে পারলে অনায়াসেই লাভ অর্জন করা যায়। এই ব্যবসা করতে গেলে রিয়েল এস্টেট সম্পর্কে এবং এর কেনা বেচার সম্পর্কে বিস্তারিত জ্ঞান থাকতে হয়। বর্তমানে এই ব্যবসা খুবই চাহিদা সম্পন্ন স্থানে রয়েছে। বেশীরভাগ লোকই এজেন্টের মাধ্যমেই সম্পত্তি কিনে থাকেন। আপনি এই ধরনের এজেন্ট হিসাবে কাজ করলে সহজেই আপনি কমিশনের মাধ্যমে যথেষ্ট পরিমানে অর্থ উপার্জন করতে সক্ষম হবেন। এটি বর্তমানের একটি ভালো ব্যবসা।

১০। অনলাইন ফিটনেস ট্রেনার

বর্তমানে প্রত্যেকটি মানুষই হয়ে উঠেছে শরীর সচেতন। বিশেষত এই সময়ে শরীরকে ভালো রাখা খুবই জরুরি। আর আপনার যদি ফিটনেস সম্পর্কে ভালো জ্ঞান ও দক্ষতা থেকে থাকে তাহলে অনায়াসেই আপনি অনলাইন ফিটনেস ট্রেনার হিসাবে সপ্তাহান্তে অর্থ উপার্জন করতে সক্ষম হবেন।

আপনার কি বক্তব্য এই দশটি উইকেন্ড ব্যবসার আইডিয়া সম্বন্ধে? আমাদের বিশ্বাস এই উইকেন্ড ব্যবসার আইডিয়াগুলো আপনাকে সপ্তাহান্তে অতিরিক্ত অর্থ উপার্জন করে জীবনে এগিয়ে যেতে সাহায্য করবে। পাঠকদের উপার্জনের এক নতুন দিশা দেখানোর উদ্দেশ্যে উইকেন্ড ব্যবসার আইডিয়া নিয়ে লেখা এই পোস্ট আপনার কেমন লাগলো তা অবশ্যই আমাদের জানান কমেন্ট সেকশনের মাধ্যমে এবং লাইক ও শেয়ার করে পোস্টটিকে ছড়িয়ে দিন সকলের মাঝে। এছাড়াও টেকনোলজি জগতের বর্তমান খবরা-খবর রাখতে এবং নিজের জীবনকে আরও আধুনিকতায় সাজিয়ে তুলতে অবশ্যই চোখ রাখুন টুকিটেকের ওয়েবসাইট এবং সোশ্যাল মিডিয়া পেজে। 

Leave a Reply